ছবি আছে ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের চিকিৎসায় এগিয়ে আসুন

ছবি আছে ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের চিকিৎসায় এগিয়ে আসুন
August 28 15:58 2017

তিন সন্তানের জননী মরিয়ম বেগম (৩৫) দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন। অপ্রাপ্ত বয়স্ত তিনটি সন্তান রেখেই তার জীবন প্রদীপ নিভে যেতে বসেছে। তার চিকিৎসার জন্য ৪ লাখ টাকার প্রয়োজন। দ্রুত টাকা জোগাড় করতে না পারলে তার অপারেশনও করা সম্ভব নয় বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। কিন্তু হতদরিদ্র ভ্যান চালক স্বামী এবং তার পরিবারের পক্ষে এত টাকা জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না।

ফলে পরিবারের পক্ষ থেকে তার চিকিৎসা সহায়তায় সমাজের দানশীল এবং বিত্তবানদের কাছে এগিয়ে আসার অনুরোধ করা হয়েছে। মরিয়ম বেগম নগরীর খালিশপুর নিউ মার্কেট
রোডস্থ ৬২ নং প্লটের বাসিন্দা মো. শহিদুল ইসলামের স্ত্রী। সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা : মো. শহিদুল ইসলাম, ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, দৌলতপুর শাখা, খুলনা। মুদারাবা সঞ্চয়ী হিসাব নং-২৭২৫৪।
বিকাশ নং ০১৭২৯-৪৪৯৭৬৭।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মরিয়ম বেগম চলতি বছরের প্রথম দিকে ডান পায়ে ব্যাথার সূত্র ধরে পরীক্ষা-নিরীক্ষার এক পর্যায়ে তার শরীরে ক্যান্সার জীবানু ধরা পড়ে। তখন তিনি খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ও রেডিও থেরাপী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. মো. মুকিতুল হুদার তত্বাবধায়নে চিকিৎসা নেন। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে তাকে কোলকাতা এ্যাপোলো হাসপাতালে নেওয়া হয়।

কিন্তু সেখানে চিকিৎসার জন্য ৪ লাখ টাকা চায়। কিন্তু এতটাকা জোগাড় করতে না পেরে ঠাকুর পুকুরের সরোজ গুপ্তা ক্যান্সার সেন্টারে ভর্তি করা হয়। সেখানে ৪জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্বাবধায়নে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরবর্তীতে অর্থাভাবে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। বর্তমানে তিনি ঢাকার বনানী ক্লিনিকে ডা. ছেতাবুর রহমানের
তত্বাবধায়নে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

মরিয়ম বেগমের স্বামী শহিদুল ইসলাম জানান, চিকিৎসক দ্রুত তার স্ত্রী’র ডান পা কেটে ফেলতে বলেছেন। কিন্তু তার পক্ষে ৪ লাখ টাকা জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। যে কারণে অপারেশনও করাতে পারছেন না। ইতিমধ্যেই তার বড় ছেলের পড়ালেখা বন্ধ হয়ে গেছে। একদিকে, ছোট দু’ সন্তানের লেখাপড়া অন্যদিকে স্ত্রী’র চিকিৎসায় তিনি সহায়-সম্বল
বিক্রি করে প্রায় ৪ লাখ টাকা ব্যয় করেছেন।

আর অবশিষ্ট কিছুই নেই। তিনি স্ত্রী’র চিকিৎসা সহায়তার জন্য সমাজের দানশীল এবং বিত্তবানদের এগিয়ে আসার অনুরোধ করেছেন।

বার্তা প্রেরক
পরিবারের পক্ষে
মো. আবিদ হোসেন
(মরিয়ম বেগমের বড় ছেলে)।

write a comment

0 Comments

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Add a Comment