টার্কি মুরগী পালন বাংলাদেশে কত লাভজনক দেখুন খবর

July 25 03:50 2017

টার্কি পাখি। মুরগির মতো দেখতে মনে হলেও এটি পাখি প্রজাতির অন্তর্ভূক্ত। বর্তমানে বাংলাদেশে টার্কির প্রচরণ ব্যাপকভাবে শুরু না হলেও এরই মধ্যে স্বল্প পুঁজিতে অল্পদিনেই খুলনার টার্কি ফার্ম’ নামে বাণিজ্যিক খামার তৈরি করে সাফল্যের দুয়ার খুলেছেন নগরীর বটিয়াঘাটা, মোহাম্মদ নগর রহিম মিয়া। এখন সেই ফার্ম থেকে উত্পাদিত ডিম ও বাচ্চা ছড়িয়ে পড়ছে আশেপাশের এলাকাসহ দেশের বিভিন্নস্থানে। শখের বশে স্বল্প পরিসরে গড়ে তোলা টার্কির ফার্ম থেকে প্রতিমাসে ভালোই আয় করছেন তিনি।

দুই মাস বয়সের প্রতিটি টার্কি কিনেছেন ২ হাজার টাকা করে। টার্কিগুলোর মধ্যে মুরগি ৯টি এবং মোরগ ছিল ৮টি। ৬ থেকে ৭ মাস বয়সে টার্কি ডিম দেয়া শুরু করে। দেশি মুরগির মতো ১৫ থেকে ২০টি ডিম দেওয়ার কিছুদিন পর আবার ডিম দেয়ার কথা থাকলেও গত কুরবানি ঈদের পর থেকে তিনি প্রতিদিন ৬ থেকে ৭টি করে ডিম পাচ্ছেন। বর্তমানে ৮শ টাকা হালি দরে বিক্রি হচ্ছে টার্কির ডিম। এছাড়া প্রতিটি বড় টার্কি বিক্রি হচ্ছে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকায়।

টার্কির রোগবালাই প্রতিরোধ ক্ষমতা খুবই প্রবল। ৬ মাসে একটি পুরুষ টার্কির ওজন হয়েছে ৫ থেকে ৬ কেজি এবং স্ত্রী টার্কির ওজন হয়েছে ৩ থেকে ৪ কেজি। বেশ কিছু বাচ্চা বিক্রির পরও বর্তমানে তার ফার্মে টার্কির সংখ্যা ৭০টি। এর মধ্যে বাচ্চা আছে ৩০টি। খেতে সুম্বাদু টার্কির মাংসের ব্যাপক চাহিদা থাকায় বাণিজ্যিকভাবে টার্কির ফার্ম গড়ে তুলতে ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন তিনি।

এদিকে টার্কি ফার্ম থেকে ইতোমধ্যে তার এলাকা ছাড়াও ঢাকা, বরিশাল, ময়মনসিংহ, হবিগঞ্জ এবং গোপালগঞ্জের অনেকেই উত্পাদিত ডিম ক্রয় করেছেন।

টার্কির মাংসের সুখ্যাতি বিশ্বজুড়ে। তাই উত্পাদন খরচ তুলনামূলক অনেক কম হওয়ায় টার্কি মুরগিপালন করা অনেক লাভজনক। খাবার বলতে ঘাস হচ্ছে টার্কির প্রধান খাবার। এছাড়া পাতা কপি, কচুরিপনা এবং দানাদারযুক্ত খাবার হচ্ছে টার্কির খাবার। তাই যে কেউ অনায়াসে টার্কি পালন করে লাভবান হতে পারেন। তবে কিছু প্রতারক চক্র ভারত থেকে নিম্নমানের টার্কির বাচ্চা নিয়ে আসছে। কম টাকায় বাচ্চাগুলো বিক্রি করায় সহজে ক্রেতা আকৃষ্ট হচ্ছেন। কিন্তু এগুলোর মান খুবই খারাপ। অধিকাংশ ক্ষেত্রে বাচ্চাগুলো মারা যাচ্ছে। সহজে নিম্নমানের বাচ্চা চেনার কোনো উপায় না থাকায় বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান থেকে বাচ্চা সংগ্রহ করাই উত্তম।

 

 

 

write a comment

0 Comments

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Add a Comment

Your data will be safe! Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.
All fields are required.