ডুমুরিয়ায় আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত

0
3
57 dhara

জি এম আব্দুস ছালাম, সংবাদদাতা: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের ৫৭ ধারা প্রত্যাহারের দাবিতে গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় ডুমুরিয়ায় উপজেলা সদরের বাস স্টান্ডে দৈনিক প্রবাহ পত্রিকার পক্ষ থেকে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন ও পথসভার আয়োজন করা হয়। এদিকে খুলনা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত টিম প্রকৃত ঘটনা জানার জন্য মামলার বাদী, আসামী,
স্থানীয় সাংবাদিক ও সংশ্লিষ্ট প্রাণী সম্পদ বিভাগ ও সুফলভোগীর সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেছেন।

সাংবাদিক এম এ এরশাদের সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব মোজাম্মেল হক হাওলাদার, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ননের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক প্রবাহের বার্তা সম্পাদক মো: শাহা আলম, দৈনিক মানবজমিনের খুলনা ব্রুরো প্রধন রাশেদুল ইসলাম, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকা ও প্রবাহের স্টাফ রিপোর্টার খুলনা সংবাদদাতা নূরুজ্জামান, একই পত্রিকার সহ-সম্পাদক মেহেদী মাসুদ খান, ওহিদুজ্জামান বুলু, আসাফুর রহমান কাজল, এম এ আজিম, মানবাধীকার কর্মী অমরোশ গাইন, চারুবসু স্মৃতি পরিষদের সভাপতি শফিক আহম্মেদ ও ৫৭ ধারায় জামিনে মুক্তি পাওয়া দৈনিক প্রবাহের ডুমুরিয়া প্রতিনিধি আব্দুল লতিফ মোড়ল।

বক্তারা বলেন, ডুমুরিয়া উপজেলায় গত ২৯ জুলাই খুলনা জেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের আয়োজনে স্থানীয় সংসদ সদস্য মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ প্রতি মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এফসিডিআই প্রকল্পের আওতায় সুফলভোগীদের মাঝে ছাগল, হাঁস ও মুরগী বিতরণ করেন। ওই দিন রাতে দক্ষিণ ডুমুরিয়া গ্রামের সুফলভোগী জুলফিকার আলী ঢালির ছাগলটি অসুস্থ হয়ে মারা
যায়।

এ ঘটনাটি সাংবাদিক আব্দুল লতিফ মোড়ল অনলাইনের একটি সংবাদের সাথে তার ফেসবুক আইডিতে শেয়ার করেন। এতে সুব্রত ফৌজদার মন্ত্রীর মানহানি ঘটেছে মর্মে ডুমুরিয়া থানায় ৫৭ ধারায় ৩১ জুলাই আব্দুল লতিফ মোড়লকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। গভীর রাতে পুলিশ তার বাড়ী থেকে তাকে গ্রেফতার করে সকালে আদালতে প্রেরণ করেন। বুধবার বিকালে জামিনে তিনি মুক্তি পান।

এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত ডুমুরিয়া থানায় খুলনা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দক্ষিণ শফিউল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বি সার্কেল সজিব খান ও ডিআই ওয়ান আকবর হোসেন তদন্ত কার্যক্রম চলছিলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here