পুলিশ সুপার খুলনার সার্বিক তত্বাবধানে খুলনা জেলা গোয়েন্দা শাখার অভিযান

0
9
dumuria ovijan

পুলিশ সুপার খুলনার সার্বিক তত্বাবধানে খুলনা জেলা গোয়েন্দা শাখার একটি দল, ডুমুরিয়া থানার অফিসার ফোর্স সহ বিশেষ অভিযান পরিচালনা কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে
ডুমুরিয়া থানাধীন বামুন্দিয়া গ্রামস্থ জনৈক মিজানুর রহমান এর বসত বাড়ী থেকে জামাত-শিবির ও বিএনপির নেতা-কর্মী ক্যাডার বাহিনী মোঃ মিজানুর রহমান (৪২), পিতা-মৃত রওশন আলম গোলদার, আক্তারুজ্জামান শেখ (৪২), পিতা-মৃত দলিল উদ্দিন শেখ, মতিয়ার রহমান সরদার (৫০), পিতা-মৃত মোহাম্মদ আলী সরদার, মোজাহিদ সরদার (২৪), পিতা-মতিয়ার রহমান সরদার, আবুল হাসেন ফকির (৫০), পিতা-মৃতঃ সবেদ আলী ফকির, সর্ব সাং-বামুন্দিয়া, থানা-ডুমুরিয়া, জেলা-খুলনাদের নিকট হতে একটি ল্যাপটপ, ০৪টি ককটেল সহ আরো বিভিন্ন ধরনের জামায়াত শিবির এর ইসলামী বই এবং লিফলেট সহ গ্রেফতার করে।

ঘটনার সংক্ষিপ্ত বিবরণ এই যে, গোপন সংবাদে ডুমুরিয়া থানাধীন বামুন্দিয়া গ্রামে ধৃত ১নং আসামি মিজানুর রহমান এর বসত বাড়ীতে ৫০/৬০ জনের জামায়াত শিবির ও বিএনপি এর নেতাকর্মীর সদস্যগণ গোপণ বৈঠকে মিলিত হয়ে শলা পরামর্শ করিতেছে। উক্ত সংবাদে জেলা গোয়েন্দা শাখা, খুলনা এবং ডুমুরিয়া থানার অফিসার ফোর্স সহ ২৬/০৮/২০১৭ খ্রিঃতারিখ রাত্র ১১.৩৫ মিনিটের সময় মিজানুরের বাড়ীতে ঘেরাও দিলে বৈঠকে অংশগ্রহণকারীগণ দৌড়ে পালানোর সময় উক্ত ০৫জনকে ধৃত করে এবং উক্ত স্থানে তল্লাশী করে উল্লেখিত ০৪টি ককটেল (বোমা), জিহাদী বই, ল্যাপটপ পায়।

জিজ্ঞাসাবাদ করে পলাতক ২৭ জন সহ ৩২ জনের এবং ৩০/৩৫ জনের বিরুদ্ধে পুলিশ পরিদর্শক এসএম আলমগীর কবির বাদী হয়ে অভিযোগ দিলে ডুমুরিয়া থানার মামলা নং-৩৪,
তারিখ-২৭ আগষ্ট, ২০১৭; ধারা-১৯৭৪ সনের বিশষ ক্ষমতা আইনের ১৫/১৬(২)/২৫(ঘ) ধারা তৎসহ ১৯০৮ সনের বিষ্ফোরক উপদানাবলী আইনের ৪/৫/৬ ধারা রুজু হয়। আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ০৫ দিনের পুশিল রিমান্ডের আবেদন সহ বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত অব্যহত আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here