বাংলার স্বাধীনতা

0
18
২৫ মার্চ
স্বাধীনতা একটি শর্ত, যেখানে একটি জাতি, দেশ, বা রাষ্ট্র বা জায়গা যেখানে জনগণ থাকবে, নিজস্ব শাসনব্যবস্থা, এবং সাধারণত কোন অঞ্চলের সার্বভৌমত্ব থাকবে। স্বাধীনতার বিপরীত হচ্ছে পরাধীনতা. স্বাধীনতা মানে যা খুশি তা করা নয়।

স্বাধীনতা দীর্ঘ বিপ্লব বা সহিংসতার প্রশ্নে বিতর্ক যেভাবেই হোক, সার্বভৌমত্ব অর্জন[১] যদিও কিছু বিপ্লবের উদ্দেশ্য এবং লক্ষ্য জাতীয় স্বাধীনতা অর্জন; অন্যদের শুধুমাত্র ক্ষমতা লাভের উদ্দেশ্য, যেখানে মুক্তির উপাদান থাকে, যেমন একটি দেশের মধ্যে গণতন্ত্রায়ন, যেখানে সীমানায় কোন পরিবর্তন হয় না। জাতি-রাষ্ট্র কোন বিপ্লবী কর্মকাণ্ড ছাড়া স্বাধীনতা দিয়েছে।[] উদাহরণস্বরূপ রাশিয়ার অক্টোবর বিপ্লব,জাতীয় স্বাধীনতার উদ্দেশ্যে হয়নি। (যদিও এর মাধ্যমে রুশ সাম্রাজ্যে ক্ষমতার পালা বদল হয়েছিল, যদিও এর ফলে পোল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, লিথুয়ানিয়া, লাতভিয়া এবং ইস্তোনিয়া স্বাধীনতা লাভ করে). যাইহোকআমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু থেকেই স্বাধীনতার উদ্দেশ্যই ছিল।

স্বায়ত্তশাসন বলতে এক ধরনের স্বাধীনতা বুঝায়, যেখানে কেন্দ্রীয় কর্তৃপক্ষ অনেক কিছু নিয়ন্ত্রণ করে এবং নিজের কতৃত্বও বজায় থাকে।

ঐতিহাসিকভাবে, সেখানে স্বাধীনতা ঘোষণার প্রধান তিনটি সময়কাল পর্যন্ত আছে।

একটি দেশের বা রাজ্যের স্বাধীনতা লাভের অনেক উদ্দেশ্য থাকে। স্বাধীনতা লাভের উপায়গুলোর মধ্যে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ যেমন ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন থেকে, সহিংসতা যেমন গৃহযুদ্ধ হতে পারে।–(উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here