বঙ্গবন্ধুর ৪২ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা

0
30
bongo bondhu

মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪২ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ বলেছেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট সন্তান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন একজন সাহসী বীর। তাঁর নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা স্বাধীনতা অর্জণ করি কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট তাঁকে হত্যার মধ্যদিয়ে বাংলার ইতিহাসে এক বিভাজন রেখার সৃষ্টি হয়।

এই হত্যাকান্ড শুধু একজন মানুষের নয় বরং হত্যা করা হয়েছিল একটি জাতির পিতাকে। যার ফলে গোটা জাতিকে হতে হয়েছে কলঙ্কিত। বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া উত্তরসুরী প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা বিচারের মাধ্যদিয়ে আমাদের কিছুটা কলঙ্কমুক্ত করেছেন। তিনি গত কাল বুধবার খুলনা জেলা পরিষদ আয়োজিত মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪২ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে অধ্যায়নরত ছাত্র/ছাত্রীদের মধ্যে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের
মাঝে পুরষ্কার বিতরণী ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্ত্যবে উপরোক্ত একথাগুলো বলেন।

জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আলিম উদ্দিন এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জনাব সাধন রঞ্জন ঘোষ, সাবেক অধ্যক্ষ,সরকারী বি.এল. কলেজ, দৌলতপুর, খুলনা, জনাব মাহাবুবার রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, খুলনা এবং প্রফেসর মোঃ আলমগীর কবির, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, খুলনা, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান জামাল, ত্রান ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক নিমাই চন্দ্র রায়, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের সভাপতি এস. এম ফরিদ রানা, অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা পরিষদের সদস্য জয়ন্তী রানী সরদার, শোভা রানী হালদার, ফারহানা নাজনীন, নাহার আক্তার, জেসমিন পারভীন জলি, কবির হোসেন খাঁন, রজত কান্তি শীল, অভিজিৎ চন্দ, মোঃ সাজ্জাদুর রহমান, মোল্লা আকরাম হোসেন, মোঃ আব্দুল মান্নান গাজী, শেখ আবু জাফর, সহকারী প্রকৌশলী জনাব হাফিজুর রহমান খান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা জনাব মোঃ মিজানুর রহমানসহ জেলা পরিষদের অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দসহ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন, সাবেক ছাত্রনেতা জামিল খান, বিধান চন্দ্র রায়সহ বিশিষ্ট সমাজ সেবকগন এবং বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here